অসাধারণ একটি ইসলাম গল্প.. - All Teach BD. বাংলাদেশের সকল শিক্ষণীয় বিষয় এর সমাহার

Header Ads

অসাধারণ একটি ইসলাম গল্প..








দুইটা ঈদ কাহিনী! দুইটা ঈদ বার্তা! দুইটা ইতিহাস! দুইটা শিক্ষা!
যা ঘটেছিল অর্ধেক পৃথিবী শাসন করা খলিফা ওমর রাদিআল্লাহু আনহুর সাথে।
.
প্রথম ঘটনাঃ
এইরকম কোন এক ঈদের আগের দিন। ওমর ফারুক রাদিআল্লাহু আনহু এর বাড়িতে ছোট ছেলে কান্না করছে। তখন ওমর রাঃ এর স্ত্রী বললেন, আমাদের নতুন কাপড় না হলেও চলবে কিন্তু ছোট বাচ্চা তো বুঝে না। তাঁর জন্য কি নতুন জামার ব্যাবস্থা করা যায়?
তখন অর্ধ পৃথিবীর শাসক ওমর রাঃ বলেন, আমার তো নতুন জামা কেনার সেই পরিমান টাকা নেই?
.
পরে ওমর রাঃ ফাইনান্স ডিপার্টমেন্টে একটা চিঠি লিখলেন, এক মাসের বেতন অগ্রিম নেয়ার জন্য। তখন ঐ বিভাগের দায়িত্ব ছিল, আবু উবাইদা রাঃ এর উপর। এই ধরনের চিঠি পড়ে তিনি কেঁদে দিলেন। কিন্তু দায়িত্ব ও প্রাজ্ঞাবান এই সাহাবী টাকা না দিয়ে চিঠির জবাবে লিখলেন, হে আমীরুল মুমিনীন! অগ্রিম বেতন নিতে হলে দু'টি বিষয়ে আপনাকে ফয়সালা দিতে হবে।
প্রথমত, আগামী মাস পর্যন্ত আপনি বেঁচে থাকবেন কি না? দ্বিতীয়ত, বেঁচে থাকলেও মুসলমানেরা আপনাকে খিলাফতের
দায়িত্বে বহাল রাখবে কিনা?
চিঠি পাঠ করে হযরত উমর (রাঃ) কোন প্রতি উত্তর তো করলেনই না, বরং এতো এতো কেঁদেছেন যে তাঁর চোখের পানিতে দাঁড়ি ভিজে গেল।
পরে ওমর রাঃ দোয়া করলেন আবু উবাইদা রাঃ জন্য। আল্লাহ কে বললেন, হে আল্লাহ! তুমি আবু উবাইদার প্রতি রহম কর এবং ছেলে কে বললেন, তোমার পিতা অর্ধ জাহানের শাসক হতে পারে কিন্তু অগ্রিম অর্থ নেয়ার অধিকারী নয়।
.
দ্বিতীয় ঘটনাঃ
এক ঈদুল ফিতরের দিনে। ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু কাঁদছেন। খুব অঝোরে। সবাই যার যার মত করে আনন্দ করছেন। হঠাৎ সাহাবারা খেয়াল করলেন ওমর ফারুক রাঃ কাঁদছেন। অবাক হয়ে সাহাবারা জিজ্ঞাস করলেন, আপনি কাঁদছেন? এই ঈদের দিনেও?
.
তখন ওমর রাঃ জবাব দিলেন, আমি রাসূল সাঃ বলতে শুনেছি, যে ব্যাক্তি রামাদান মাস পেল কিন্তু ইবাদাত করে গুনাহ মাফ করে নিতে পারল না সে ধ্বংস হোক।
এখন রোযা শেষ হয়ে আজ ঈদের দিন। আমি এখনোও জানি না আমার গুনাহ মাপ হয়েছে কি না? আমি কিভাবে নিশ্চিত হয়ে ঈদ আনন্দ করি?
.
আল্লাহু আকবার!!!
.
এই ছিল সাহাবাদের ঈদ আনন্দ। এই ছিল সাহাবাদের ঈদ শপিং।
.
যেসব সাহাবীদের জান্নাত দুনিয়াতে থাকতেই আল্লাহ নিশ্চিত করেছেন তারা যদি এইভাবে গুনাহের জন্য কান্নাকাটি করে তাহলে আমি আপনি কি করা উচিত?

No comments

Powered by Blogger.