একটুখানি ভালোবাসা.......... - All Teach BD. বাংলাদেশের সকল শিক্ষণীয় বিষয় এর সমাহার

Header Ads

একটুখানি ভালোবাসা..........

শিশির, তমাল এবং মাহিন ৩ বন্ধু। তারা সবাই শিক্ষিত ফ্যামিলির সন্তান। তারা ঘনিষ্ট বন্ধু হওয়ার কারনে তাদের কাজ, ধ্যান ধারনা গুলোর মোটামোটি মিল আছে। তবুও মাহিন অন্য দুইজনের চেয়ে একটু আলাদা।
তারা তিন জন এতটি সামাজিক সংগঠন এর সাথে জরিত। সংগঠনটির মূল লক্ষ্য হলো তরুন ছাত্রসমাজ কে আদর্শ শিক্ষার পাশাপাশি চরিত্র ও নৈতিক শিক্ষাকে প্রাধান্য দেওয়া। সুখে দুঃখে অন্যদের পাশে দাড়ানো। গরিব, মেধাবী ছাত্রদের সাহায্য করা।
এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্যগুলো তিন বন্ধুর সাথে মিলে যাওয়ার জন্য তারা এখানে যোগদান করে এবং তারা তাদের এলাকার প্রতিনিধিও নির্বাচিত হয়।
তারা প্রতিদিন ছাত্রদের কাছে যেত এবং ভালো কাজ করা, নামাজ পড়া, হালাল হারাম মেনে চলার জন্য দাওয়াত দিত। তাদের দাওয়াতে অনেক ছাত্র এগিয়েও আসে। একসময় তারা তাদের গ্রামে সবার কাছে খুব ভাল সুনাম লাভ করে এমনকি অনেকে ছেলেকে এদের কাছে পাঠায় ভালো শিক্ষা দেওয়ার জন্য।
বাংলাদেশ ষড়ঋতু হওয়ার জন্য একসময় আসে শীতকাল। তিন বন্ধু গ্রামে ভালো পরিচিত হওয়ার জন্য তাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে কিছু নতুন শীতবস্ত্র আসে গরিবদের দেওয়ার জন্য। তারা তিনজন বেছে বেছে ভালো তিনটা পোশাক তাদের নিজের জন্য রাখে। বাকি গুলো মোটামোটি সবাই কে বিলিয়ে দিয়েছে। 
মাহিন তাদের মধ্যে একটু ভিন্ন। সে সবসময় ভাবে তারতো মোটামোটি ভালোই চলছে তার চেয়েতো অনেক গরীব মেধাবী ছাত্র কষ্টে আছে। সে নিজেকে প্রশ্ন করে কেন এতো সব ভোগ করছি?? কাল কেয়ামতের ময়দানে আমি কি জবাব দিবো আল্লাহর কাছে? 
সে সিদ্ধান্ত নেয় যে আমি গরীবদের সেই বস্ত্র ব্যবহার করবো না। বরং সে তার বাবার কাছে টাকা নিয়ে আরো বস্ত্র কিনে এবং তার নিজের জন্য রাখা পোষাক টাও বিলি করে দেয়।
একদিন বিকাল বেলা তিনজন দাওয়াতি কাজে বের হয়েছে। শিশির এবং তমাল তাদের বাছাই করা পোষাক পড়েছে মাহিন পড়েছে কমদামী একটা পোষাক। তারা মাহিন কে এরকম পোষাক না পড়ার কারন জিজ্ঞাস করলে সে বললো আমার তো সব আছে। আমি কেন সেই গরিবদের জন্য আসা পোষাক পড়বো। সে বন্ধুদের বলে তোরাই দেখ আমাদের চেয়ে অনেক গরীব মেধাবী আছে যারা সম্মানের জন্য কাউকে কিছু বলে না। কষ্ট করে দিন যাপন করে। তাই আমার টা বিলিয়ে দিয়েছি। 
ঘুরতে ঘুরতে তারা একজন ছাত্রের কাছে আসলো। তারা দেখলো এই শীতের মধ্যে সে সামান্য একটা পোষাক পড়ে আছে। এটা দেখে অন্য দুই বন্ধুর খুব লজ্জা লাগলো। তারা ভাবলো আমাদের এতো থাকার পড়েও আমরা এই গরিবদের পোষাক ব্যবহার করছি। তারা লজ্জিত হয়ে তাদের গায়ের নতুন পোষাক খুলে সেই ভাইটিকে পড়িয়ে দিলো।
গরিব ভাইটি খুব খশি হলো তাদের ব্যবহার এ। তিন বন্ধু আরো খুশি হলো একজন গরিব ভাইয়ের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য।
তারপর থেকে প্রতিজ্ঞা করলো সুখে যেমন তারা একসাথে থাকে তেমনি হাজার দুঃখের মাঝেও একসাথে থাকবে। তারপর নতুন, প্রতিজ্ঞা নতুন সপ্ন নিয়ে এগিয়ে গেলো তাদের পথচলা।

তাই আসুন আমরাও চেষ্টা করি আমাদের জীবন টাকে সঠিক পথে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যাই এবং আমাদের উজ্জল জীবনটাকে জান্নাতের দিকে নিয়ে যেতে শুরু হোক পথচলা..................

No comments

Powered by Blogger.